ভান্ডারিয়ায় “অন্যকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফাঁসলো ফারুক”

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় চেক জালিয়াতি মামলা দিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে জালিয়াতির মামলায় নিজেই কারাগারে ঠাঁই হয়েছে এক ব্যক্তির। মঙ্গলবার অন্যরে নামের চেক জালিয়াত করে প্রতিপক্ষকে ফঁাঁসানো মামলায় ঢাকার সিএমএম আদালত কারাগারে প্র্রেরণ করেন ফারুক হোসেনকে।
অভিযুক্ত ফারুক হোসেন পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলার পূর্ব ভান্ডারিয়া এলাকার মৃত কদম আলী শরিফের পুত্র।
অভিযোগে জানাযায়, ২০১৯ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর ভান্ডারিয়ার আনোয়ার হোসেন নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে আগুন লাগে। সে সময় প্রতিবেশি ফারুক হোসেন আগুন নেভাতে এসে ঘরে থাকা ২০০১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারী ইসুকিত একটি চেক চুরি করে নিয়ে যায়। পরে সেই চেক জালিয়াতি করে আনোয়ার হোসেনকে হয়রানি ও সামাজিক ভাবে হেয় করার জন্য এ বছরের ১০ আগষ্ট চেক আনোয়ার হোসেনের নামে চেক জালিয়াতির একটা মামলা দায়ের করে। বিষয়টি আনোয়ার হোসেন জানতে পেরে চেকটির বিষয়ে ফারুক হোসেন জালিয়াতি করে তাকে হয়রানি করার জন্য মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে এবং চেক জালিয়াতি করেছে উল্লেখ করে এ বছরের ১৪ সেপ্টেম্বর তারিখে ফারুক হোসেনের নামে জালিয়াতির অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করে। পরে মঙ্গলবার জালিয়াতির মামলায় ঢাকার সিএমএম আদালতে আসামী ফারুক হোসেন হাজির আদালতের বিচারক ফারুক হোসেনকে কারাগারে প্রেরণ করে।

Categories: অন্যান্য,টপ নিউজ,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ

ব্রেকিং নিউজ