প্রতিরোধই মুক্তির একমাত্র পথ: খালেদা

প্রস্তাবিত বাজেটের সমালোচনা করে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘এই নিষ্ঠুর বাজেট সাধারণ মানুষের শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত শুষে নেওয়া শোষক শ্রেণির সর্বশেষ চেষ্টা। প্রতিরোধই মুক্তির একমাত্র পথ।’ আজ শনিবার তিনি এ টুইট করেন।

এদিকে আজ সন্ধ্যায় এক ইফতার মাহফিলে খালেদা জিয়া বলেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে দুর্নীতির সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। বাজেটে যেভাবে কর বসানো হয়েছে, তাতে দ্রব্যমূল্য বাড়বে। রাজধানীর বসুন্ধরায় কনভেনশন সেন্টারের একটি মিলনায়তনে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন।

দলের নেতা-কর্মীদের সম্মানে আয়োজিত এই ইফতারে খালেদা জিয়া বলেন, জনগণের সঙ্গে বর্তমান সরকারের কোনো সম্পর্ক নেই। কারণ, তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। সে জন্য জনগণের কষ্ট তাদের চোখে পড়ে না।

আওয়ামী লীগের আবদার না শুনে জনগণ ও রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের আয়োজন করতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন জনগণ মেনে নেবে না। বিএনপি দেশে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন চায়। নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ বুঝতে পারবে তাদের পায়ের নিচে মাটি আছে কি না বা জনগণের সঙ্গে তাদের সম্পর্ক আছে কি না।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ বিএনপি ও এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতারা ইফতারে অংশ নেন।

Categories: জাতীয়,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.

ব্রেকিং নিউজ